'সন্ত্রাসী-মাদক ব্যবসায়ী আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না' | sampadona bangla news
সোমবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৭

‘সন্ত্রাসী-মাদক ব্যবসায়ী আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না’

সম্পাদনা অনলাইন : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী নির্বাচনে তরুণ ও নারী ভোটাররাই হবেন প্রধনমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রধান হাতিয়ার।
বুধবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আওয়ামী লীগের নতুন সদস্য সংগ্রহ ও সদস্যপদ নবায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
শহরের হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত জনসভায় তিনি আরো বলেন, আর মাত্র ১০ মাস পর দেশে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করুন, উঠান বৈঠক করুন, নতুন ও নারী ভোটারদের উদ্বুদ্ধ করুন। তবে মনে রাখতে হবে যারা জনগণের কাছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, যারা সাম্প্রদায়িক অপশক্তি হিসাবে চিহ্নিত তারা আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না।
সেতুমন্ত্রী বলেন, তিনটি গোয়েন্দা সংস্থা তিনমাস পরপর প্রতিটি জেলার নেতাদের কর্মকাণ্ডের রিপোর্ট দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সবার সবখবর আছে। কাজেই যারা জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে কিংবা যারা গ্রহণযোগ্য নয়-তারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাবে না।
বিএনপিকে নালিশ পার্টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি নেতারা ঘরে বসে রাজনীতি করেন এবং মিথ্যে কথা বলেন। সত্যকথা বিএনপি নেতাদের মুখ থেকে বের হয় না। আন্দোলনের নামে জনসাধারণের সঙ্গে তারা চাতুরি করেন। বেগম খালেদা জিয়া জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে গাছ কেটেছেন, রাস্তা কেটেছেন, আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছেন। যার চিহ্ন এখনো মুছে যায়নি। এখনো অনেক সন্তানহারা মমতাময়ি মা, ভাইহারা বোন চোখের পানিতে বুক ভাসাচ্ছেন।
জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মুইনুদ্দীন মণ্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, নুরুল ইসলাম ঠাণ্ডু, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওদুদ এমপি প্রমুখ।
Share on FacebookTweet about this on TwitterShare on Google+Email this to someone

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*