‘ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে সরকার নড়বড় হয়ে গেছে' | sampadona bangla news
রবিবার , ২২ অক্টোবর ২০১৭

‘ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে সরকার নড়বড় হয়ে গেছে’

সম্পাদনা অনলাইন : ষোড়শ সংশোধনী রায় প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, এ রায়ের মাধ্যমে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ সরকারের আইনের প্রতি আত্মবিশ্বাস নেই। দেশের সর্বোচ্চ আদালতের আইনের প্রতি তাদের শ্রদ্ধা নেই। এ রায়ের মাধ্যমে দেশের ১৬ কোটি মানুষের মনের মধ্যে দুঃখ, বেদনা কথা বলা হয়েছে। এ রায়ের সরকার বিচলিত হয়ে গেছে, নড়বড় হয়ে গেছে।
‘সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে আর ম্যানেজ করতে পারতেছে না’ বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বিচারপতিরা তাদের বিবেক দিয়ে রায় দিয়েছে। আমাদের দিকে তাকিয়ে রায় দেয়নি। এতদিন আমরা যা বলে আসছি এ রায়ের মধ্যে তার প্রতিফলন ঘটেছে। বিচারপতিরা বিচ্ছিন্ন দ্বীপ নয়। এ রায়ে মধ্যে অনেক বাস্তবমুখী কথা বলা হয়েছে।
শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কোম্পানীগঞ্জে নিজ বাসভবন মাঠে নোয়াখালী কবিরহাট উপজেলা, সদর পূর্বাঞ্চল ও কবিরহাট পৌরসভা বিএনপির নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য মওদুদ আহমদ এসব কথা বলেন।
ওই অনুষ্ঠানে মওদুদ আরো বলেন, ‘এ সরকার মানুষকে ভয় পায়, জনগণকে ভয় পায়। কেন? তা আমরা জানি, কারণ তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে, জনগণ তাদের সাথে নেই। এই কারণে সরকার আমাদের ওপর এত অাক্রোশ। বিদেশিদের কাছে আমাদের দেশের কোন মান সম্মান নাই। সরকার আমাদের ঘর-বাড়ি নিয়ে গেছে, নেতাকর্মীদের ক্ষেতের ধান নিয়ে গেছে, বেগম জিয়ার বাড়ি নিয়ে গেছে। এতে জাতীয়তাবাদী শক্তি আরো উজ্জীবিত হয়েছে।’
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন- কবিরহাট পৌর বিএনপির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মঞ্জু। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, পৌর বিএনপির সম্পাদক বেলায়েত হোসেন খোকন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ফোরকান-ই আলম। বক্তব্য রাখেন, কবিরহাট পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ফখরুল ইসলাম দুলাল, কবিরহাট উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নাজমুল হুদা ফরহাদ, কবিরহাট উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুল হুদা চৌধুরী লিটন, সহ সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন প্রমুখ।
Share on FacebookTweet about this on TwitterShare on Google+Email this to someone

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*