বিশ্বকাপে চাঙ্গা হবে রাশিয়ার অর্থনীতি! | sampadona bangla news
শনিবার , ১৮ আগস্ট ২০১৮

বিশ্বকাপে চাঙ্গা হবে রাশিয়ার অর্থনীতি!

সম্পাদনা অনলাইন : আয়োজক দেশ রাশিয়ার অর্থনীতিতে জোয়ার আনবে ফুটবল বিশ্বকাপ। এই আসরের আয়োজনে ইতোমধ্যে চাঙ্গা হতে শুরু করেছে দেশটির অর্থনীতি। ফুটবলপ্রেমীদের সেরা একটি আসর উপহার দিতে সরকার বিনিয়োগ করেছে চোখ বন্ধ করে। কোথাও কোন কমতি রাখা হয়নি। সুনামের পাশাপাশি নিজেদের লাভের পাল্লাটা ভারী হবে- এমনটাই প্রত্যাশা করছে দেশটির সরকার।
রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে ব্যয় হয়েছে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫৬ হাজার কোটি টাকা। রাশিয়ান চেম্বার অব অ্যাকাউন্ট গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছে। বিশ্বকাপ উপলক্ষে নতুন স্টেডিয়াম নির্মাণ এবং সংস্কারসহ প্রচুর অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা হয়েছে। বলা যায়, এটি হবে বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম ব্যয়বহুল আসর। বিশ্বকাপ সামনে রেখে নবরূপে সেজেছে রাশিয়া। চারদিকে সাজ সাজ রব পড়ে গেছে। প্রায় ১০ লক্ষাধিক ফুটবলপ্রেমী বিদেশি অতিথিকে বরণ করতে প্রস্তুত রাশিয়া। দেশটির ১১টি শহরে আসরের ৩২টি ম্যাচ হবে। অনেক শহর রয়েছে, যারা বছরে যা আয় করে, এবার এক মাসে সেটা আয় করবে।
রুশ উপ-প্রধানমন্ত্রী আর্কদি দেভোরকোভিচ জানিয়েছেন, ‘বিশ্বকাপই এখন রাশিয়ার সব ধরনের আর্থিক প্রবৃদ্ধির প্রাণভোমরা।’ যদিও বিশ্বকাপ ছাড়া রাশিয়া এই সময়ে প্রবৃদ্ধির স্ফীতি দেখতে পেত না। দুই বছর নিম্নমুখী থাকার পর এবং পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা ও তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও রুশ অর্থনীতি বিশ্বকাপের কারণে গত বছর দেড় শতাংশ প্রবৃদ্ধি প্রত্যক্ষ করেছে।
মার্কিন রেটিং সংস্থা মুডিজের গবেষণায় উঠে এসেছে, বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে অর্থনৈতিকভাবে একধাপ এগিয়ে যাবে রাশিয়া। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে বিনিয়োগ করা সব খাতে ইতিবাচক প্রভাব দেখা যাবে। হোটেল, খাদ্য, পরিবহন এবং পর্যটন ব্যবসায় জোয়ার আসবে।
গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফুটবল বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুন করে সাজানো হয়েছে একাধিক বিমানবন্দর। বিমানবন্দর অত্যাধুনিক করায় মানও বেড়েছে যাত্রী পরিষেবার। এছাড়া বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার জেরে ২০১৩ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত এক দশকে রাশিয়ার জিডিপি থাকবে ২৬০০ কোটি থেকে ৩০৮০ কোটি ডলারের মধ্যে।
ধারণা করা হচ্ছে, ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে রাশিয়ায় ২ লাখ ২০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হচ্ছে। রুশ অর্থনীতিতে টানা ১০ বছর বাড়তি গতি সৃষ্টি করবে এবারের বিশ্বকাপ ফুটবল। এমনকি বিশ্বকাপ ফুটবল রুশদের অতিরিক্ত ব্যায়াম করতে উদ্বুদ্ধ করবে, মানুষ কম অসুস্থ হবেন এমন পূর্বাভাসও দেওয়া হয়েছে!
তবে সংস্থাটি এটাও আশঙ্কা করছে, বিশ্বের অন্যতম বড় অর্থনীতির দেশ রাশিয়া। তাই বিশ্বকাপের প্রভাব রাশিয়ার অর্থনীতিতে খুব ক্ষণস্থায়ীও হতে পারে। বিশ্বকাপ উপলক্ষে পর্যটন খাতে গুরুত্ব দিচ্ছে দেশটি। তবে এত স্বল্প সময়ে বিশ্বকাপের অর্থনৈতিক প্রভাব দেশটির জাতীয় পর্যায়ে খুবই সীমিত হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*