ফিলিস্তিনের কাছে হেরে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ | sampadona bangla news
শনিবার , ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

ফিলিস্তিনের কাছে হেরে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ

সম্পাদনা অনলাইন : বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাংলাদেশকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ফিলিস্তিন। আজ বুধবার কক্সবাজার জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধেই মিডফিল্ডার মোহাম্মদ বালাহর হেডের সুবাদে গোল পায় ফিলিস্তিন। তবে পরে অনেক সুযোগ সৃষ্টি করতে পারলেও সমতায় ফিরতে পারেনি জেমি ডের শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি সময়ে আরেকটি গোল করেন সামেহ। তাতেই ২-০ গোলে হারতে হয়েছে জামাল ভূঁইয়া-তপু বর্মণদের।

প্রথম মিনিট থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে ফিলিস্তিন। গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানার অসাধারণ গোলকিপিংয়ের সুবাদে বেশ কয়েকবার গোলের শট ফেরত যায়। তবে আট মিনিটের মাথায় ডান প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে যায় ফিলিস্তিন। মিডফিল্ডার মোসাব বাত্তানের ক্রস থেকে অসাধারণ হেডে বল জালে জড়ান বালাহ।

তবে ১২, ২১ কিংবা ২৮ মিনিটে বাংলাদেশ দলের আক্রমণ সামলাতে ঘাম ছোটাতে হয়েছে ফিলিস্তিনকে। কেবল ভাগ্য সঙ্গে না থাকায় গোল পাননি মাশুক মিয়া ও সুফিল। তবে ২২ মিনিটে গোলরক্ষকের দুই হাত দূর থেকেও গোল করতে সমর্থ হননি ফরোয়ার্ড নবীব নেওয়াজ জীবন। বাংলাদেশ একটি গোল পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়েই খেলছিল। তবে ৩৪ মিনিটে মাসুক মিয়া জনিকে ফিলিস্তিন মিডফিল্ডার সাদি সাবান পেছন থেকে ফাউল করেন। তাই রেফারি হলুদ কার্ড দেখান সাবানকে। পুরো প্রথমার্ধ জুড়েই আক্রমণ করেছে বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয়ার্ধে বল অধিকাংশ সময়েই মাঝমাঠে ছিল। দুই দলই গোল দিতে মরিয়া ছিল। একইভাবে রক্ষণভাগের খেলোয়াড়দের ভূমিকার জন্য গোল পায়নি কোনো দলই। তবে দ্বিতীয়ার্ধে আরেকটি হলুদ কার্ড দেখে ফিলিস্তিন। তবে শেষ দিকে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি সময় ছয় মিনিট যোগ হওয়ার পরে দুর্বল রক্ষণভাগের সুযোগে ৯৩তম মিনিটে আরেকটি গোল করেন ফিলিস্তিনের সামেহ। সেই ধাক্কা বাংলাদেশ কাটিয়ে উঠতে পারেনি। তাতেই ২-০ ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ।

গ্রুপ পর্বে লাওসকে ১-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে ওঠে বাংলাদেশ। ফিলিপাইনের কাছে গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে হেরেছিল জেমি ডের শিষ্যরা। আজ সেমিফাইনালে শক্তিশালী ফিলিস্তিনের কাছে হেরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*