থাইল্যান্ডের উদ্ধারকাহিনী নিয়ে হলিউডে তৈরি হবে সিনেমা | sampadona bangla news
রবিবার , ২২ জুলাই ২০১৮

থাইল্যান্ডের উদ্ধারকাহিনী নিয়ে হলিউডে তৈরি হবে সিনেমা

সম্পাদনা অনলাইন : থাইল্যান্ডের গুহায় কিশোরদের উদ্ধার কাহিনী নিয়ে ছবি বানাতে চান হলিউডের দুই প্রযোজক মাইকেল স্কট ও অ্যাডাম স্মিথ। শ্বাসরুদ্ধকর এ উদ্ধারকাজ দেখতে তাই হাজির হয়েছিলেন হলিউড পরিচালকেরা। স্কট বলেন, আমি সুপারহিট সিনেমার একটা গল্প দেখতে পাচ্ছি।
দুঃসাহসিক এ উদ্ধারকাজে তিনি উদ্ধারকর্মীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সিনেমা বানানোর জন্য তিনি সেখানকার লোকদের সঙ্গে কথা বলেন। এছাড়া গুহায় আটকে থাকা পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন তারা।
স্মিত বলেন, সিনেমা বানানোর জন্য এটা দারুন একটা গল্প ও প্রেক্ষাপট। তাই আগেভাগে আমরা চলে এসেছি। অন্য পরিচালকেরা যে কোন সময় চলে আসতে পারে।
মার্কিন প্রযোজক স্কটের স্ত্রী থাইল্যান্ডের বাসিন্দা। বছরের তিন মাস থাইল্যান্ডে থাকেন তিনি। স্কট জনায়, স্বাভাবিকভাবে আমরা উদ্বেগে ছিলাম এতদিন। তাই কাউকে তেমন কোন প্রশ্ন করা হয়নি।
তার সংস্থা ‘পিওর ফ্লিক্স ফিল্ম’ কাজ করে মূলত অ্যারিজ়োনা ও লস অ্যাঞ্জেলেসে। এখন অবধি তাদের বানানো সবচেয়ে বড় ছবি ‘গড’স নট ডেড’। ২০১৪ সালে তৈরি এই ছবিটি ৭ কোটি ডলার ব্যবসা করেছিল।
স্কট আরও জানায়, আমাদের নতুন এ ছবির কেন্দ্রে থাকবেন দুই ব্রিটিশ ডুবুরি। যারা প্রথম ওই নিখোঁজ ১৩ জনের সন্ধান পেয়েছিলেন। স্কটের ভাষায়,  ‘এই গল্প বীরত্ব ও সাহসিকতার। আমাদের পরবর্তী সিনেমার জন্য যা আদর্শ। অবিশ্বাস্য অভিযান সারা বিশ্বের অসংখ্য মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে। সকলের জানা দরকার সত্যিকার এ ঘটনার।’
ব্যাংককে ‘কেএওএস এন্টারটেনমেন্ট’ নামে একটি প্রযোজনা সংস্থা আছে হলিউড পরিচালক স্মিথের। তিনি বলেন, ‘এখানে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই, প্রত্যেকে আমরা প্রার্থণা করেছি ভালোভাবে উদ্ধারকাজ শেষ হোক এবং তা হয়েছে। এখন আমরা চাই সত্যিকার এ ঘটনা সবাই জানুক সিনেমার মাধ্যমে।’
উল্লেখ্য থাম লুয়াং গুহায় প্রায় ১৭ দিন আটকা পড়েছিলেন ‘ওয়াইল্ড বোরস’ ফুটবল দলের ১২ কিশোর খেলোয়াড় ও তাদের কোচ। তিন দিনের শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান শেষে তাদের সবাইকে গতকাল উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*