টিকেট কেটেছেন প্রধান বিচারপতি স্ত্রী সঙ্গে যাচ্ছেন না | sampadona bangla news
রবিবার , ২২ অক্টোবর ২০১৭

টিকেট কেটেছেন প্রধান বিচারপতি স্ত্রী সঙ্গে যাচ্ছেন না

সম্পাদনা অনলাইন : ছুটিতে থাকা প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিদেশ যাওয়ার সবকিছু চূড়ান্ত করা হয়েছে। তবে প্রায় এক মাসের দীর্ঘ এই সফরে এখনই সঙ্গে যাচ্ছেন না তার স্ত্রী।

শুক্রবার রাতেই সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তার অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার কথা রয়েছে।

এসকে সিনহার একান্ত সচিব জানিয়েছেন, সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সে শুক্রবার রাতের ফ্লাইটের টিকেট কেটেছেন প্রধান বিচারপতি। তবে আপাতত প্রধান বিচারপতির সঙ্গে তার স্ত্রী যাচ্ছেন না। তিনি হেয়ার রোডের সরকারি বাসার ব্যক্তিগত মালামাল অন্যত্র স্থানান্তর করে যাবেন।

এদিকে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিদেশ যাওয়া সংক্রান্ত সরকারি আদেশ (জিও) বৃহস্পতিবার জারি করেছে আইন মন্ত্রণালয়। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে গতকাল সকালে মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু সালেহ মো. জহিরুল হক এ আদেশ জারি করেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, এর আগে গত বুধবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারির (গভর্নমেন্ট অর্ডার) ফাইলে স্বাক্ষর করেন।

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর বাতিলের রায়ের পর পর্যবেক্ষণ নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে অনেক দিন ধরেই আলোচনা চলছিল। এর পর ২৫ দিনের অবকাশ শেষে গত ৩ অক্টোবর সুপ্রিমকোর্ট খোলার দিনই অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হঠাৎ ১ নভেম্বর পর্যন্ত এক মাসের ছুটি চেয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে চিঠি দেয়া হয় প্রধান বিচারপতির পক্ষ থেকে। ওই চিঠি নিয়ে নানা বিতর্ক শুরু হয়। এর পর গত মঙ্গলবার তিনি আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতিকে তার বিদেশ ভ্রমণের বিষয়টি চিঠি দিয়ে অবহিত করেন। ওই চিঠিতে ১৩ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রধান বিচারপতি অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে চান বলে উল্লেখ রয়েছে। এর আগে তিনি সস্ত্রীক অস্ট্রেলিয়ায় যেতে পাঁচ বছরের ভিসার জন্য দূতাবাসে আবেদন করেন। তাদের তিন বছরের ভিসা দেয় অস্ট্রেলিয়া দূতাবাস। দেশটিতে বর্তমানে তাদের বড় মেয়ে সূচনা সিনহা অবস্থান করছেন।

Share on FacebookTweet about this on TwitterShare on Google+Email this to someone

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*