টঙ্গীতে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে নিহত ৫ : যোগাযোগ বন্ধ | sampadona bangla news
শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮

টঙ্গীতে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে নিহত ৫ : যোগাযোগ বন্ধ

সম্পাদনা অনলাইন : গাজীপুরের টঙ্গীতে ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৩৫ জন। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
আজ রবিবার বেলা ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের টঙ্গী হাসপাতাল ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে, নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় জানা গেছে। তার নাম আমির ওরফে আবির (৪৪)। তার বাড়ি জামালপুরে। তিনি ঢাকার বেগুনবাড়িতে রিকশা চালাতেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জামালপুর কমিউটার ট্রেনটি স্টেশনের ২ নং লাইন দিয়ে আসছিল। স্টেশনে পৌঁছার পর সেটি লাইন বদলানোর সময় ভুল স্যিগনালের কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে। টঙ্গি রেল স্টেশনের মাস্টার হালিমুজ্জামান দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কি করণে দুর্ঘটনা ঘটেছে, সেটি তদন্তের পর বলা যাবে। দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক।
এই দুর্ঘটনার কারণে রাজধানীর সঙ্গে কেবল নারায়ণগঞ্জ ছাড়া সারাদেশের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।
তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন
টঙ্গীতে জামালপুর কমিউটার ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে পাঁচজন নিহত হওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন রেলপথ মন্ত্রী মজিবুল হক। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তিনি টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকায় ছুটে যান। এসময় তিনি দুর্ঘটনার কারণ জানতে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমকে জানান।
বাংলাদেশ রেলওয়ে (পূর্ব) চিফ ইঞ্জিনিয়ার মো. আরিফুজ্জামানকে প্রধান করে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন, রেলওয়ের মহাপরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো. আমজাদ হোসেন, গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ, ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক আক্তারুজ্জামান, জয়দেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুল ইসলাম, টঙ্গী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাসানুজ্জামান। এছাড়াও দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল ও মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*