জুভেন্টাসেই যাচ্ছেন রোনালদো! | sampadona bangla news
রবিবার , ২২ জুলাই ২০১৮

জুভেন্টাসেই যাচ্ছেন রোনালদো!

সম্পাদনা অনলাইন : চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনাল শেষেই রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে নয় বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন দলটির পর্তুগিজ স্ট্রাইকার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বিশ্বকাপের ডামাডোলে এরপর আর এ নিয়ে তেমন কিছু শোনা যায়নি। কিন্তু বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্ব থেকে পর্তুগালের বিদায়ের পর পুনরুজ্জীবিত হয়েছে গুঞ্জনটি। এখনকার খবর ইতালীয় পরাশক্তি জুভেন্টাসে পাড়ি জমাচ্ছেন রোনালদো।
জুভেস্তাসের সাবেক সিইও লুসিয়ানো মোজ্ঞির মতে ইতোমধ্যেই দলটির সঙ্গে চুক্তি সই করে ফেলেছেন রোনালদো। উল্লেখ্য যে, রোনালদোর কৈশোরেই তাকে দলে ভেড়ানোর একটা চেষ্টা করেছিলেন মোজ্ঞি।
বিভিন্ন সূত্র মোতাবেক জানা গেছে,  ৮৮ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে রিয়াল মাদ্রিদের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতাকে দলে ভেড়াতে চায় জুভেন্টাস। লুসিয়ানো মোজ্ঞি ১৯৯৪ সাল থেকে ২০০৬ পর্যন্ত জুভেন্টাসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ছিলেন। কিন্তু ২০০৬ সালে ইতালীয় ফুটবল কেলেঙ্কারিতে প্রধান চরিত্র সাব্যস্ত হওয়ায় আজীবনের জন্য সব ধরনের ফুটবল কর্মকাণ্ড থেকে নিষিদ্ধ করা হয়। মোজ্ঞি মনে করেন শুধু প্রস্তাব দেওয়াতেই সীমাবদ্ধ নেই ব্যাপারটি, ইতোমধ্যে চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছে গেছে তা। ৮০ বছর বয়সী মোজ্ঞি ইতালীয় এক টিভি নেটওয়ার্ককে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেন, ‘আমার মনে হয়, সে ইতোমধ্যে মিউনিখে জুভেন্টাসের সঙ্গে চুক্তিতেও সই করে ফেলেছে এবং সব ধরনের মেডিক্যাল পরীক্ষাতেও উের গেছে। গুরুত্বপূর্ণ কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলার পরে আমার এমনটাই মনে হয়েছে।’
২০০২ সালে রোনালদোকে জুভেন্টাসে ভেড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন মোজ্ঞি। স্পোর্টিং লিসবনে তখন রোনালদো উদীয়মান তারকা, ধীরে ধীরে ইংলিশ লিগের দলগুলোর আকর্ষণে পরিণত হতে শুরু করেছেন। সাক্ষাত্কারটিতে সে ঘটনাটিরও স্মৃতিচারণ করেন তিনি। তত্কালীন জুভেন্টাস স্ট্রাইকার মার্সেলো সালাসের সঙ্গে রোনালদোকে অদলবদল চুক্তির প্রস্তাবটি আলোর মুখ দেখেনি শেষে। পরের মৌসুমে রোনালদো যোগ দেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। সাবেক জুভেন্টাস প্রধান বলেন, ‘আমি তার সম্পর্কে আগেই একটা খবর পেয়েছিলাম। তার যখন ১৮ বছর বয়স তখন তাকে পর্যবেক্ষণ করতে আমি একজন পর্যবেক্ষককে পাঠিয়েছিলাম সেখানে। সে তার পরিপক্বতা দিয়ে আমাকে মুগ্ধ করেছিল।’
তিনি আরও বলেন, ‘আগেই আমি চুক্তিটি করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে মার্সেলো সালাস এতে সম্মত হয়নি কারণ সে রিভার প্লেটে ফিরতে চেয়েছিল।’ রোনালদোকে জুভেন্টাসে আনতে টাকার অঙ্কেরও প্রস্তাব দিয়েছিলেন মোজ্ঞি। কিন্তু স্পোটিং লিসবন তাতেও সম্মতি প্রকাশ করেনি। তিনি বলেন, ‘১৮ বছর বয়সী খেলোয়াড়টির জন্য আমি তাদেরকে আরও পাঁচ মিলিয়ন দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সে সময় সেটা সম্ভব হয়নি আর।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*