সম্পাদনা অনলাইন : পরিবর্তিত খাদ্যাভ্যাস, অনিয়ন্ত্রিত জীবন সঙ্গে ভেজাল ও দূষণ। এ সব কারণেই  বিশ্ব জুড়ে তৈরি হচ্ছে মৃত্যুফাঁদ। ক্যানসারের বিস্তৃত চলাচল। বিজ্ঞান এগোলেও এই মারণ রোগের সঙ্গে এখনও এঁটে উঠতে পারেনি চিকিৎসা বি়জ্ঞান।

বিশেষজ্ঞদের মতে, গোটা বিশ্বই ‌দিনে দিনে অসহায় ভাবে হেরে যাচ্ছে এই অসুখের কাছে। সেই ভাবনাকে উস্কে দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যানসার (আইএআরসি)।

ক্যানসারের প্রকোপে গোটা বিশ্বে চলতি বছরেও মারা যেতে পারেন প্রায় এক কোটি মানুষ। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এঁদের প্রত্যেকেই এই মারণ রোগের অন্তিম পর্যায়ে রয়েছেন।

সম্প্রতি তাদের একটি সমীক্ষায় উঠে এল এমনই তথ্য। শুধু তা-ই নয়, ২০১৮-তে দুনিয়া জুড়ে ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। এ বছর এই অসুখের শিকার হয়েছেন প্রায় ১ কোটি ৮০ লক্ষ মানুষ।

এর আগেও ক্যানসার নিয়ে এমন পর্যালোচনা করেছিল আইএআরসি। বছর ছয়েক আগের সেই সমীক্ষায় ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১ কোটি ৪১ লক্ষ। তাঁদের মধ্যে প্রায় ৮২ লক্ষের মৃত্যু ঘটে। প্রতি পাঁচ জনের এক জন পুরুষ ও প্রতি ছ’জনের এক জন মহিলাই বর্তমানে এই অসুখের শিকার। পরিবেশের বদল, ধূমপান, মদ্যপান, জাঙ্ক ফুড, আধুনিক জীবনযাত্রা— সব কিছুর প্রভাবেই এই সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-এর মতে, এই মারণ রোগের বাড়বাড়ন্ত এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছচ্ছে যে একুশ শতকে মানুষের মৃত্যুর প্রধান কারণই হয়ে দাঁড়াবে এই অসুখ।