কারাবন্দির ৩৭ শতাংশ মাদকাসক্ত : আইজি প্রিজন | sampadona bangla news
শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮

কারাবন্দির ৩৭ শতাংশ মাদকাসক্ত : আইজি প্রিজন

সম্পাদনা অনলাইন : আইজি প্রিজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন জানিয়েছেন,  দেশের ৬৮টি কারাগারে বন্দির সংখ্যা ৭৭ হাজার ১২৪ জন। এর মধ্যে জঙ্গি বন্দি ৫৭৭ জন। মোট বন্দিদের মধ্যে ৩৬.৯৭ শতাংশ মাদকের সঙ্গে সম্পৃক্ত। আর এই মাদক পাচারের সঙ্গে বন্দিদের পাশাপাশি কারা অধিদফতরের কিছু কর্মচারী জড়িত রয়েছে। গত এক বছরে এই সংখ্যা ২০ জনের বেশি হবে না। তবে এসব কর্মচারীদেরকে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে।
কারা সপ্তাহ-২০১৮ কে সামনে রেখে রবিবার কারা অধিদফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।
কারা প্রধান সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন  উদাহরণ টেনে বলেন, একটি কারাগারে ৭ থেকে ৮ হাজার বন্দির মধ্যে যদি ৩ হাজার বন্দি সবসময়ই চেষ্টা করে মাদক প্রবেশ করানোর জন্য।  আর বিভিন্ন শিফট মিলিয়ে যদি ১০০ কারারক্ষী তা ঠেকাতে দায়িত্ব পালন করেন, তাহলে বিষয়টা কষ্টসাধ্য।
কীভাবে কারাগারে মাদক ঢুকে সে কথাও জানান আইজি প্রিজন। তিনি জানান, পেঁয়াজ, রশুনের বস্তার ভেতরে পাচারের সময় মাদক ধরা পড়েছে। এর বাইরেও নানা অভিনব উপায়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এসব পন্থা ধরতেও আমাদের সময় লাগে। উন্নত দেশের কারাগারেও শতভাগ মাদক প্রবেশ বন্ধ সম্ভব হয়নি।
তিনি বলেন, আমাদের সক্ষমতার অভাব রয়েছে, আমাদের জনবল অনেক কম। এই কম জনবল দিয়ে আমাদের সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে হচ্ছে। মূল কাজগুলো করতেই আমরা হিমশিম খাচ্ছি। জনবল ঘাটতির মধ্যেও মাদক নিয়ন্ত্রণের জন্য বডি স্ক্যানার বসানো হচ্ছে। ইতোমধ্যে যন্ত্রটি নিয়ে আসা হয়েছে। এখন শুধু স্থাপন করা বাকি। দ্রুত তা চালু করা সম্ভব হবে।’
বন্দিদের পূর্ণাঙ্গ ডাটাবেজ তৈরির ব্যাপারে আইজি প্রিজন বলেন, ডাটাবেজ তৈরির কাজ চালু রয়েছে। তবে এখন কিছুটা ধীর গতিতে হচ্ছে। সারাদেশে ৪০টি কারাগারে আংশিক কাজ হয়েছে। বাকিগুলোর কাজ চলছে। কিছু কারিগরি সমস্যার সমাধান হলেই এই পূর্ণাঙ্গ ডাটাবেজ তৈরির সুফল পাবো।
সংবাদ সম্মেলনে আইজি প্রিজন জানান, আগামী ২০ থেকে ২৬ মার্চ কারা সপ্তাহ পালিত হবে। ২০ মার্চ গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে এই সপ্তাহ উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। এবারের কারা সপ্তাহের  প্রতিপাদ্য  নির্ধারণ করা হয়েছে, ‘সংশোধন ও  প্রশিক্ষণ, বন্দির হবে পুনর্বাসন’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*